‘নদী তীরে অবৈধ স্থাপনা থাকবে না’

আপডেটঃ ৫:৪১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৭, ২০১৯

সি এন এ প্রতিবেদক :নদীর তীরে সরকারি-বেসরকারি অবৈধ কোনো স্থাপনা থাকবে না বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চট্রগ্রামের কর্ণফুলী নদীসহ ঢাকার চারপাশের নদীগুলোর দূষণরোধ এবং নাব্যতা বৃদ্ধির জন্য মাস্টারপ্ল্যান তৈরি সংক্রান্ত কমিটির সভা শেষে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আমাদের অভিযান চলছে, নদী অবৈধ দখলমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে।’

তাজুল ইসলাম বলেন, ‘উচ্ছেদকৃত জায়গা পরিকল্পিতভাবে সাজানো হবে। ধরতে পারেন টেমস নদীর মত, তবে সেটা তো ১০০ বছরের সফলতা। যা আমরা ১০ বছরে করব বলে আশা করছি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ, নদীর জায়গায় সরকারি-বেসরকারি কোনো স্থাপনা থাকবে না। ক্ষমতাধরদের হাত যতই লম্বা হোক না কেন কোনো লাভ নেই। আপনারাই দেখছেন, অভিযান কিন্তু অব্যাহত আছে এবং থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘নদীসমূহ দখল ও দূষণমুক্ত করতে ১০ বছরের মাস্টার প্লান হাতে নেওয়া হয়েছে। মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়নের কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। সব মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সমন্বয় করতে কর্মপরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।’