পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে প্রতিমন্ত্রীকে পত্র

আপডেটঃ ৬:৪২ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৯

সি এন এ নিউজ,টঙ্গী (গাজীপুর) : গাজীপুরের টঙ্গীতে পরিবারের নিরাপত্তা ও সুবিচার চেয়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে একটি আবেদন পত্র দিয়েছেন স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা। স্থানীয় নেতা নূর নবী আনছারী ও কাউন্সিলর মাজাহারুল ইসলাম দিপু বিরুদ্ধে হত্যার হুমকি ও নির্যাতনের অভিযোগ করে এ পত্র প্রেরণ করা হয়।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গাজীপুর ২ আসনের সাবেক সাংসদ আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার প্রধান স্বাক্ষী সুমন মজুমদারের পরিবারকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়েছে স্থানীয় নেতা নূর নবী আনছারী ও কাউন্সিলর মাজাহারুল ইসলাম দিপু। শত্রুতার অবসান ঘটাতে গত মঙ্গলবার রাত এক গ্রাম্য সালিশে স্থানীয় কাউন্সিলর অফিসে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সুমনের পিতা মনির মজুমদার বুধবার টঙ্গী পুর্ব থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেছেন।
এ ব্যাপারে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মনির মজুমদার লিখিত বক্তব্যে জানান, আমার বড় ছেলে সুমন বর্তমান যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের পিতা আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী হওয়ায় তাকে (সুমনকে) পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।  তার পরিবারের সদস্যদেরকে কাউন্সিলর দীপু বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করে আসছেন। তাকে ও তার পরিবারের সদস্যদেরকে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম গুলোতে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।
বিএনপির সময় ব্যাপক নির্যাতন ও গুম খুনের শিকার হওয়ায় তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দিতে তখন তার বাড়িতে যান এবং সম্প্রতি তিনি তার পরিবারকে ১০ লাখ টাকার অনুদান দেন বলেও মনির মজুমদার জানান।