‘ফাইনালে’ মুখোমুখি দক্ষিণ আফ্রিকা-পাকিস্তান

আপডেটঃ ১০:২২ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ৩০, ২০১৯

ক্রীড়া ডেস্ক :প্রথম ম্যাচটা জিতেছিল পাকিস্তান। পরের দুই ম্যাচ জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। চতুর্থ ম্যাচে জয়ের হাসি আবার পাকিস্তানের। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে এখন ২-২ সমতা। শেষ ম্যাচটা তাই অঘোষিত ফাইনালে রূপ নিয়েছে।

কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচটি শুরু হবে আজ বাংলাদেশ সময় বিকেল পাঁচটায়। কে জিতবে সিরিজ- দক্ষিণ আফ্রিকা নাকি পাকিস্তান?

চতুর্থ ম্যাচে নাটকীয় ধসে পাকিস্তানের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে হাশিম আমলা ও ফাফ ডু প্লেসির ফিফটিতে একটা সময় ২ উইকেটে ১১৯ রান তুলে ফেলেছিল প্রোটিয়ারা।

কিন্তু ৪৫ রানে শেষ ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৬৪ রানেই গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস। ৩৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের গুঁড়িয়ে দেন পেসার উসমান খান। পরে ইমাম-উল-হকের ফিফটি এবং ফখর জামান ও বাবর আজমের চল্লিশোর্ধ দুটি ইনিংসে পাকিস্তান ৮ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ১১১ বল হাতে রেখেই।

অথচ ম্যাচের আগে বড় ধাক্কাই খেয়েছিল পাকিস্তান। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার আন্দিলে ফিকোয়াওকে বর্ণবাদী মন্তব্য করে আইসিসির চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার খড়গে পড়েন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। সরফরাজের অনুপস্থিতিতে শোয়েব মালিক সেদিন অধিনায়কের দায়িত্ব পান কখন জানেন? মাঠে আসার পর!

সেই মালিকের নেতৃত্বে কী দুর্দান্ত এক জয়ই না তুলে নেয় পাকিস্তান। আজ তাই সিরিজ জয়ের স্বপ্নটা ভালোভাবেই দেখছে সফরকারীরা। পাশাপাশি আগামী মে মাসে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ ভাবনাটাও আছে।

ম্যাচের আগের দিন মালিক যেমন বলেছেন, ‘আমরা সেসব খেলোয়াড়কেই সুযোগ দেওয়ার চেষ্টা করছি যারা বিশ্বকাপে খেলবে বলে আমরা মনে করছি। দক্ষিণ আফ্রিকায় ভালো একটি দলের বিপক্ষে খেলাটা দারুণ সুযোগই বটে।’

অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা বড় ম্যাচ ভেবে বাড়তি চাপ নিতে নারাজ। প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি বলেছেন সেটাই, ‘অবশ্যই এটা বড় ম্যাচ। তবে যতটা আছে তার চেয়ে বেশি বড় মনে না করাটাও আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমরা যখন এটিকে খুব বড় করে দেখব, তখন আমরা দল হিসেবে নিজেদের সেরাটা বের করে আনতে পারব না।’