ঢাবিতে অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম কম্পিউটার ল্যাব উদ্বোধন

আপডেটঃ ১১:০১ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৪, ২০১৮

সি এন এ প্রতিবেদক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য উদ্বোধন করা হয়েছে অধ্যাপক ড. মুহম্মদ সিরাজুল ইসলাম কম্পিউটার ল্যাব।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সপ্তম তলায় বুধবার বিকেলে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন। ল্যাবটি বিভাগের প্রাক্তন অধ্যাপক ড. মুহম্মদ সিরাজুল ইসলামের পরিবারের অর্থায়নে নির্মিত হয়েছে।

উদ্বোধনী বক্তব্যে উপাচার্য আখতারুজ্জামান বলেন, একটি কম্পিউটার ল্যাব উদ্বোধন করার উদ্দেশ্যে এখানে মিলিত হয়েছি। কিন্তু এখানে পুরো আলোচনার মাধ্যমে আবেগ চলে এসেছে, সবাই আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েছি। মনে হলো যেন- কিছুদিন আগে তিনি (অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম) মারা গেছেন, আমরা তার স্মরণ সভায় উপস্থিত হয়েছি।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ. কে. আজাদ- সমকাল

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে আজাদ বলেন, ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এ বিভাগে (ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি) তার যোগ্য কন্যা রেখে গেছেন। তার মেয়ের (শবনম শেহনাজ চৌধুরী দীপা) কান্নাভরা বক্তব্যে আমাদেরও চোখে পানি এসেছে। বাবার প্রতি মেয়ের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা যে কতটা থাকতে পারে তা এখানে এসে আরো স্পষ্ট হলো।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী হিসেবে সবাইকে দায়িত্ব নিতে হবে উল্লেখ করে এ কে আজাদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনেক শিক্ষার্থী পাশ করে বেরিয়ে যান। কিন্তু পরবর্তীতে তারা নিজ বিভাগে পা’ও রাখেন না। প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিভাগমুখী হতে হবে। কেননা, শিক্ষার্থী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়, বিভাগ, হল সবকিছুর প্রতি তাদের দায়িত্ব রয়েছে।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই এসোসিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদানের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়ন করেছে উল্লেখ করে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নিজ সাধ্য অনুযায়ী অনুদান দেওয়ার আহ্বান জানান।

ইসলামের ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. আতাউর রহমান মিয়াজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন, দেশ বরেণ্য জাদুশিল্পী জুয়েল আইচ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ড. সিরাজুল ইসলামের জীবনালেখ্য উপস্থাপন করেন ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সিদ্দিকুর রহমান খান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি প্রাক্তণ ছাত্র সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

অনুষ্ঠানে স্মৃতিচারণকালে সিরাজুল ইসলামের বড় মেয়ে অধ্যাপক সাবিহা সালাহউদ্দীন, ছোট মেয়ে ও ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি প্রাক্তন ছাত্র সমিতির সাধারণ সম্পাদক শবনম শেহনাজ চৌধুরী দীপা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক ছিলেন। ১৯৫১ সালে তিনি এ বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৭৭ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৮৮ সালে অবসর গ্রহণ করেন। এছাড়া ১৯৮৮ থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত তিনি কুষ্টিয়ার ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।