ভাড়ায় পাওয়া যাবে আইফোন!

আপডেটঃ ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৮, ২০১৮

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : আইফোনের জন্য কত কিছু করতেই তো শোনা যায়। কেউ রক্ত বিক্রি করে আইফোন কিনে তো কেউ কিডনি বিক্রি করেও আইফোন কিনেছে এমন তথ্যও বিশ্ব মিডিয়ায় এসেছে। কেননা বাজারে প্রচলিত সাধারণ ফোনের তুলনায় আইফোনের দাম আকাশ ছোঁয়াই বলা যায়।

আর দিন যত যাচ্ছে আইফোন তাদের ফোনের মানের সঙ্গে সঙ্গে দামও বাড়াচ্ছে অনেক। সবচেয়ে বড় কথা প্রযুক্তি তো আর থেমে থাকেনা। তার ধারাবাহিকতায় ফোনও থেমে থাকেনা।

প্রায় প্রতি বছরই আইফোন নতুন মডেলের পাওয়া যায়। ফলে সব সময় চাইলেও আপগ্রেড থাকা যায়না। এই ধারণা থেকেই ভারতের একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ভাড়ায় দিচ্ছে আইফোন। তবে তারা শুধু আইফোনই ভাড়া দেয় না। দামি যেকোনো ফোনই ভাড়ায় পাওয়া যায়। এছাড়া ফার্নিচার, ইলেকট্রনিক্স, মোটরবাইকও ভাড়া দেয়। এমনকি পুরো রুম সাজানোর প্যাকেজও আছে তাদের।

প্রতিষ্ঠানটির উদ্দেশ্য হচ্ছে, মানুষকে সব সময় আপগ্রেড রাখা। নতুন নতুন ডিজাইন আসলে যাতে আপনি তা ব্যবহার করতে পারেন তার সুবিধা দেয়া। ‘রেন্টোমোজো’ নামের এই সাইটে গেলে দেখা যায় বাহারি ফার্নিচার, আইফোন কিংবা রয়েল এনফিল্ডের মোটরবাইক ভাড়ায় পাওয়া যাচ্ছে। আইফোন ১০এস ম্যাক্সের মাসিক ভাড়া সর্বনিম্ন ৫৪৪৯ রুপি থেকে শুরু। তবে ফোন সর্বনিম্ন ৬ মাসের জন্য ভাড়া দেয়া হয়। সেক্ষেত্রে ভাড়া আরো বেশি। ৬ মাসের জন্য ভাড়া নিতে হলে ভারতীয় মুদ্রায় গুনতে হবে ১০,৯৯০ রুপি।

রেন্টোমোজো’র ভাষায়, আপনি মাসিক ইএমআই দিয়েও যদি কিনে ব্যবহার করেন তবে তা আপনার জন্য অনেক বেশি খরুচে। আর একেবারে পুরো টাকা দিয়ে কিনলে তো কথাই নেই। তাছাড়া কিছুদিন পর পর যাদের নতুন নতুন ফোন ব্যবহার করার নেশা তাদের জন্য কেনার চেয়ে ভাড়া নেয়াই উত্তম। সেক্ষেত্রে খরচও কম আর আপগ্রেডও থাকা যায়।

অভিনব এই আইডিয়া ইলেকট্রনিক্স পণ্যের জন্য খুবই যুগোপযোগী। কেননা নদীর স্রোতের মতো ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ডিজাইন ও ফিচার প্রবাহ মান। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো আপডেট আসতেই থাকে। তাই যাদের অল্প আয় কিন্তু প্রযুক্তির প্রতি অগাধ প্রেম তাদের জন্য এই আইডিয়া দুর্দান্ত। আশা করা যায়, অচিরেই আমাদের দেশেও এমন কোন প্রতিষ্ঠান আসবে যারা আমাদের মোবাইল ফোনপ্রেমীদেরও এমন সুবিধা দেবে।