‘কালো কিন্তু কী সুন্দর দেখতে’

আপডেটঃ ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৭, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : দর্শকপ্রিয় টলিউড অভিনেত্রী পার্নো মিত্র। ২০১১ সালে ‘রঞ্জনা আমি আর আসবো না’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। তারপর ‘বেডরুম’, ‘আমি আর আমার গার্লফ্রেন্ডস’ ‘অপুর পাঁচালী’, ‘রাজকাহিনী’, ‘ডুব’-এর মতো অনেক জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী।

অভিনয় গুণে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন পার্নো মিত্র। তবে তার গায়ের রঙ কিছুটা কালো হওয়ায় ছোটবেলা থেকে মানুষের কাছ থেকে নানা নেতিবাচক মন্তব্য শুনেছেন। শুধু তিনি নন-হলিউড, বলিউডে প্রতিষ্ঠিত অনেক অভিনয়শিল্পী বিভিন্ন সময় বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন। সম্প্রতি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে এ বিষয়ে কথা বলেছেন পার্নো মিত্র।

পার্নো মিত্র বলেন, ‘শৈশব থেকে আমি শুনে আসছি, ‘কালো কিন্তু কী সুন্দর দেখতে।’ ভারতে সবাই সৎ হতে চায় কিন্তু কেউ বলে না, ‘ফর্সা কিন্তু কত সুন্দর দেখতে।’ এখানে কালো চামড়ার একজন নারীকে প্রায়ই শুনতে হয় ‘ময়লা’। পশ্চিমা দেশে, ট্যানিং স্টুডিও-এর ধারণা প্রচলিত রয়েছে। সেখানে ট্যানড লুকের জন্য অনেক মানুষ উৎসাহ নিয়ে যায়। অনেকেই আমার গায়ের রঙের মতো হতে চায়। দুঃখজনক হলেও ভারতে এমনটা কেউ চায় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘স্কুলজীবন থেকে পরীক্ষায় আমি প্রথম হতাম। মিউজিকে ভালো ছিলাম। তা ছাড়া ক্লাশের ক্যাপ্টেন ও মনিটরও ছিলাম। আসলে আমার অর্জন আমাকে সহযোগিতা করেছে। যার জন্য আমার গায়ের রঙ বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি।’