ধর্ম অবমাননা : মৃত্যুদণ্ড থেকে খালাস পেলেন আসিয়া

আপডেটঃ ৫:১৫ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ৩১, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ব্লাসফেমি আইনে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া এক খ্রিস্টান নারীকে বেকসুর খালাস দিয়েছে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট। ধর্ম অবমাননার অভিযোগে দায়ের করা ওই মামলাটির আপিল গ্রহণ করে বুধবার আসামি আসিয়া বিবিকে মুক্তির আদেশ দেওয়া হয়।

২০০৯ সালের জুন মাসে লাহোরের কাছে শেখুপুরা এলাকায় ফল সংগ্রহ করতে যেয়ে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী আসিয়া নুরিন কাপ ব্যবহার করে একটি বালতি থেকে পানি  পান করেন। এসময় সেখানে থাকা অন্য নারীরা পানি অপবিত্র হয়ে গেছে এবং এটি আর ব্যবহার করা যাবে না বললে কথা কাটাকাটি শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা আসিয়া বিবিকে ধর্মান্তরিত হওয়ার জন্য প্ররোচিত করে । এর জবাবে চার সন্তানের জননী আসিয়া মহানবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নিয়ে কটুক্তি করেন। এ ঘটনায় আসিয়ার বিরুদ্ধে ব্লাসফেমি আইনে মামলা হয় এবং ২০১০ সালে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। সেই থেকে কারাগারে আটক আছেন তিনি।

বুধবার রায়কে ঘিরে সহিংসতার আশঙ্কায় রাজধানী ইসলামাবাদজুড়ে ছিল কড়া নিরাপত্তা। করাচি, লাহোর ও পেশওয়ারের রায়ের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের জন্য অনেকে জড়ো হয়েছিল।

প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার আসিয়ার আপিলের রায়ে বলেন, অন্য কোনো মামলায় সংশ্লিষ্টতা না থাকলে আসিয়া বিবি লাহোরের কাছে শেখুপুরা কারাগার থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

রায় পড়ার সময় আদালতে হাজির ছিলেন না আসিয়া। বার্তা সংস্থা এএফপিকে টেলিফোনে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, ‘যা শুনছি তা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। আমি কি এখন বের হতে পারব? তারা কি সত্যি আমাকে মুক্তি দিচ্ছে?’