মিশন শুরু

আপডেটঃ ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ১৫, ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক:এমন সকাল দেখার জন্য এক যুগ অপেক্ষা করেছিলেন ফজলে মাহমুদ রাব্বী। তাইতো আজকের সকাল তার জন্য খুব স্পেশাল।

২০০৪ সালে যখন প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট শুরু করেছিলেন তখন থেকেই জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন তার। কিন্তু কিছুতেই সেই  স্বপ্ন পূরণ হচ্ছিল না। অনেক চড়াই উৎরাই পার করে অবশেষে মিলল সুযোগ।

জিম্বাবুয়ে সিরিজকে সামনে রেখে আজ থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় দলের ক্যাম্প। ১৫ জনের দলে একমাত্র নতুন মুখ রাব্বী। ৩০ বছর বয়সি রাব্বী প্রথমবারের মতো সুযোগ পেয়েছেন।

সকাল সাড়ে ৯ টায় স্কিল অনুশীলনের মধ্য দিয়ে মিশন শুরু করেছে বাংলাদেশ।  মিরপুর  মূল স্টেডিয়ামের পাশাপাশি ইনডোর আউটার এবং ইনডোরে স্কিল অনুশীলন করছেন মুশফিক, মাশরাফি, মুস্তাফিজরা।বেলা ১২টা ৩০ পর্যন্ত চলবে স্কিল অনুশীলন। এক ঘন্টার বিরতি দিয়ে ফিল্ডিং এবং জিম সেশন চলবে।

তিনটি ওয়ানডে এবং দুটি টেস্ট খেলতে আগামীকাল ঢাকায় আসবে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। তিনটি ওয়ানডে  ২১, ২৪ ও ২৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ওয়ানডে হবে মিরপুর শের-ই-বাংলায়। পরের দুটি ওয়ানডে হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশের ক্রিকেটে এখন অনেক পার্থক্য। র‌্যাঙ্কিং ও মাঠের শ্রেষ্ঠত্ব বলছে সে কথা। ৯২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান সাতে। ৫৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে জিম্বাবুয়ের অবস্থান ১১তম স্থানে। দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে ৬৯ ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে ৪১টি, জিম্বাবুয়ের জয় ২৮টি। সবশেষ ১০ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো ম্যাচ জিতেনি জিম্বাবুয়ে। সবশেষ জিতেছিল ২০১৩ সালের ৮ মে বুলাওয়েতে। তবে শেষ ১০ ম্যাচের প্রতিটি বাংলাদেশের ডেরায় এসে হেরেছে জিম্বাবুয়ে।

ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে বাংলাদেশের র‌্যাঙ্কিংয়ের পরিবর্তন হবে না। রেটিং পয়েন্টেরও বড় কোনো পরিবর্তন আসবে না। জিম্বাবুয়েকে ৩-০ ব্যবধানে হারাতে পারলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট বাড়বে এক। তবে জিম্বাবুয়ে হোয়াইটওয়াশ করতে পারলে বাংলাদেশ হারাবে ৮ রেটিং পয়েন্ট।

বাংলাদেশ স্কোয়াড: মাশরাফি বিন মুর্তজা, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিথুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি, সাইফ উদ্দিন ও ফজলে মাহমুদ রাব্বি।