শারীরিক সম্পর্কে আপত্তি, ক্ষোভে স্ত্রীর শিরশ্ছেদ করলেন স্বামী

আপডেটঃ ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ০৯, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে আপত্তি জানানোয় ক্ষোভে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করেছেন পাষণ্ড স্বামী। নির্মম এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ু প্রদেশের ত্রিচির তিরুভেরুম্বুরে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ২৬ বছরের স্ত্রী জেসিন্থা জসবিনকে কুপিয়ে হত্যা ও শিরশ্ছেদের দায়ে স্বামী ডি শঙ্কর সগায়ারাজকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চলতি বছর জানুয়ারিতে বিয়ে করেন এ দম্পতি।

তবে বিয়ের কয়েক সপ্তাহ পর থেকে তাদের ঝগড়া হতো। বেসরকারি একটি বীমা কোম্পানির অ্যাজেন্ট শঙ্কর অফিসে নিয়মিত যেতেন না; এ নিয়ে তার স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়ই কথা কাটাকাটি হয়। কয়েক মাস আগে স্ত্রীকে না জানিয়ে শঙ্কর বেশকিছু গয়না বন্ধক রাখলে তাদের মধ্যে প্রচণ্ড ঝগড়া হয়।

পরে রাগ করে বাবার বাড়িতে চলে যান শঙ্করের স্ত্রী জেসিন্থা। গত ৩০ সেপ্টেম্বর শঙ্কর ও তার বাবা-মা জেসিন্থার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেন এবং জেসিন্থাকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনেন।

গত রোববার রাতে আবারো তাদের মাঝে ঝগড়া শুরু হয়। তামিলনাড়ুর পুলিশ বলছে, জেসিন্থা শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে আপত্তি জানানোয় ক্ষেপে যান শঙ্কর। রাত দু’টার দিকে জেসিন্থা ঘুমিয়ে ছিলেন। এই সময় শঙ্কর ধারালো অস্ত্র দিয়ে জেসিন্থাকে কুপিয়ে হত্যা করে। শুধু তাই নয়, স্ত্রীর ধর থেকে মাথাও বিচ্ছিন্ন করে সে।