অভিনন্দন হৃদয়

আপডেটঃ ৯:১০ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: হৃদয় আছে যার, সেই তো ভালোবাসে…। সত্যিই অসাধারণ ভালোবাসা। গৌরীপ্রসন্ন মজুমদারের এই গানের মতোই ছেলের প্রতি মায়ের যে ভালোবাসা, তা জয় করেছে হৃদয়। বলছিলাম সদ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাওয়া হৃদয় সরকারের কথা।

মঙ্গলবার প্রকাশিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের অধীনে খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল। সেখানে তিনি ১২০.৯৬ নম্বর পেয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।

হৃদয় সরকার। মা সীমা সরকার। বাবা সমীরণ সরকার। মা-বাবার দুই সন্তানের মধ্যে বড় হৃদয়। জন্ম থেকেই অজ্ঞাত রোগ তার। চলাফেরা করতে পারেন না। তার হাতের সব আঙুলও কাজ করে না। কিন্তু চলাচলের কষ্ট হৃদয়কে বুঝতে দেননি বাবা-মা। জন্মের পর থেকেই হৃদয়কে নিজের কোলে করে বড় করেছেন মা সীমা সরকার। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা, সবখানেই নিজেই কোলে নিয়ে গেছেন মা। এখানে জানিয়ে রাখি, ছোট থেকেই হৃদয় তার মায়ের কোলে চড়ে স্কুল-কলেজে আসা যাওয়া করত।

হৃদয় সরকার নেত্রকোনা জেলা স্কুল থেকে জিপিএ ৪.০৬ পেয়ে এসএসসি পাস করেন। আবু আব্বাস ডিগ্রি কলেজ থেকে জিপিএ ৪.৫০ পেয়ে এইএসসি পাস করেন।

মায়ের কোলে চড়ে গত ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দিতে এলে হৃদয়ের একটি ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এরপর থেকেই গণমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হয়। হৃদয়কে অনেকেই শুভকামনা জানান সামাজিক মাধ্যমে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর হৃদয় বলেন, ফলাফলের পেছনে সবচেয়ে বড় অবদান আমার মায়ের। সেই ছোট থেকেই তিনি আমাকে কোলে করে স্কুল-কলেজে নিয়ে যান। তিনি আমাকে কোনোদিন হুইল চেয়ার ব্যবহার করতে দেননি। যতদিন তিনি বেঁচে আছেন, যতদিন সামর্থ্যে কুলায়, তিনি আমাকে কোলে করেই নিয়ে যাবেন।

অদম্য হৃদয়ের এই ফলাফলে উচ্ছ্বসিত তার পুরো পরিবার। আমরাও তাকে অভিনন্দন জানাই। আশা করি, ভালোভাবে তিনি পড়াশোনা শেষ করবেন। শুভকামনা হৃদয়।