স্কুলছাত্রকে অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

আপডেটঃ ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

সি এন এ  নিউজ,হবিগঞ্জ :হবিগঞ্জে অভিজিৎ সূত্রধর (১১) নামে এক স্কুলছাত্রকে অপহরণের পর ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে দুই অপহরণকারীকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত অভিজিৎ সূত্রধরকেও উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি থেকে অপহরণকারীদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- উপজেলার মজলিশপুর গ্রামের সিরাজ আলীর ছেলে কিতাব আলী ও পুরাতন পাথারিয়া গ্রামের প্রফুল্ল সরকারের ছেলে রিপন সরকার।

অপহৃত অভিজিৎ সূত্রধর হবিগঞ্জ শহরতলীর রামপুর গ্রামের বাসিন্দা অভিনয় সূত্রধরের ছেলে এবং স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র।

এ ঘটনায় সোমবার রাতে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, সোমবার দুপুরে স্কুল থেকে ফিরে অভিজিৎ খাওয়া-দাওয়া শেষে বাড়ির পাশে মাঠে খেলতে যায়। এ সময় তাকে পার্শ্ববর্তী মজলিশপুর কিতাব আলী ও পুরাতন পাথারিয়া গ্রামের রিপন সরকার অপহরণ করে নিয়ে যায়। তাদেরকে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকা দেয়ার কথা বলে অপহরণের জন্য ভাড়া করে অপহৃত শিশুর প্রতিবেশী দীলিপ সূত্রধরের ছেলে আকাশ সূত্রধর। কথা অনুযায়ী তারা অভিজিৎকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, পরে আকাশ মোবাইল ফোনে অভিজিতের বাবা অভিনয় সূত্রধরের কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। তিনি বিষয়টি পুলিশ সুপারকে জানান। তাৎক্ষণিক পুলিশ সুপার জেলার সব থানায় বিষয়টি অবহিত করেন। জেলা গোয়েন্দা শাখা থেকে মোবাইল ট্র্যাকিংও শুরু করা হয়। এক পর্যায়ে চুনারুঘাট থানা পুলিশ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শিশুটিকে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান থেকে উদ্ধার করে। এ সময় অপহরণকারী কিতাব আলী ও রিপন সরকারকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ বলেন, অপহরণের মূল হোতা আকাশ সূত্রধর পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় অপহৃত শিশুর বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।