কক্সবাজারে পাহাড় কেটে বিক্রির দায়ে নারীর কারাদণ্ড

আপডেটঃ ৮:৫৯ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

সি এন এ  নিউজ.কক্সবাজার:কক্সবাজার সদরের ইসলামাবাদ ইউনিয়নে পাহাড় কেটে বিক্রির অভিযোগে মনজিয়ারা বেগম (৩৫) নামে এক নারীকে আটক করেছে পরিবেশ অধিদফতর ও বন বিভাগ। সোমবার বিকেলে ইউনিয়নের আউলিয়াবাদ এলাকা থেকে তাকে আটকের পর সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ভোমরিয়ার ঘোনা রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মনজিয়ারা বেগম ইসলামাবাদ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের আউলিয়াবাদ এলাকার শাহ আলমের স্ত্রী ।

ভোমরিয়ারঘোনা রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম জানান, মনজিয়ারা তার বসতবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় একটি পাহাড় কেটে দীর্ঘদিন ধরে বিক্রি করে আসছিল। এমন অভিযোগে পরিবেশ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশ্রাব ও উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা হক মাহবুব মোর্শেদসহ ভোমরিয়া রেঞ্জ অফিসের লোকজন ও স্থানীয় বিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে মনজিয়ারাকে আটক করে। অভিযান টের পেয়ে পালিয়ে যায় পাহাড় কাটা শ্রমিকরা। তাদেরও আটক করতে অভিযান চলছে।

তিনি আরও জানান, আটক নারী পাহাড় কাটার বিষয়টি প্রাথমিকভাবে স্বীকার করায় সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুল হাসানের কার্যালয়ে তাকে হাজির করা হয়। সেখানে অপরাধ স্বীকার করায় সংশ্লিষ্ট ধারায় মনজিয়ারাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা হক মাহবুব মোর্শেদ জানান, আদালত চলাকালে পরিবেশ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশ্রাব প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করেন। বন সম্পদ ধ্বংসকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।