হারিকেন ফ্লোরেন্স দুর্বল হয়ে পড়েছে

আপডেটঃ ২:০৮ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের দিকে এগিয়ে যেতে থাকা হারিকেন ফ্লোরেন্স দুর্বল হয়ে পড়েছে। শক্তি কমে এটি এখন দুই মাত্রার হারিকেনে পরিণত হয়েছে।

বুধবার জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) বুধবার একথা জানিয়েছে। তবে দুর্বল হলেও এটি বিপর্যয় সৃষ্টি করতে পারে বলে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

সেন্টারের কর্মকর্তারা বলেছেন, বাতাসের গতিবেগ কমে ১১০ মাইলে নেমে আসতে পারে। কিন্তু ফ্লোরেন্স ধীর গতিতে এগাচ্ছে যার অর্থ হলো স্থলভাগে আঘাত হানতে এর কয়েকদিন সময় লাগবে এবং এর প্রভাবে ভয়াবহ জলোচ্ছ্বাস ও ভারি বৃষ্টিপাত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়টি এখন সাউথ ক্যারোলাইনার মার্টল বিচ থেকে ৫২০ কিলোমিটার পূর্ব-দক্ষিণপূর্বে রয়েছে। উত্তরপশ্চিম দিকে ঘন্টায় ২৮ কিলোমিটার বেগে অগ্রসর হচ্ছে। এটি আরো দক্ষিণদিকে অগ্রসর হচ্ছে।

এ কারণে সর্বশেষ জর্জিয়া রাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। এর আগে উত্তর ও দক্ষিণ ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া মেরিল্যাণ্ড এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

এর আগে ফ্লোরেন্স কয়েক দশকের মধ্যে এই অঞ্চলে আঘাত হানতে যাওয়া সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হতে পারে বলে সে দেশের আবহাওয়া দপ্তর থেকে সতর্ক করা হয়েছিল।

সে সময় ঘন্টায় ২২০ কিলোমিটার বাতাসের বেগ নিয়ে চার মাত্রার এই ঘূর্ণিঝড় ক্যারোলাইনা উপকূলের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়। আটলান্টিকের উষ্ণ জলের সংস্পর্শে এসে এটি পাঁচ মাত্রা পর্যন্ত শক্তি অর্জন করতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছিল।

সতর্কতা হিসেবে উপকূলীয় এলাকা থেকে ১০ লাখেরও বেশি বাসিন্দাকে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যেতে বলা হয়। বিশেষ করে সাউথ ক্যারোলাইনা, নর্থ ক্যারোলাইনা ও ভার্জিনিয়া উপকূল থেকে বাধ্যতামূলক সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।