দুই পায়ে লেখাপড়াসহ সব কাজ

আপডেটঃ ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

সি এন এ নিউজ,ডেস্ক:পৃথিবীতে সব মানুষ পূর্ণতা নিয়ে জন্মায় না। তবে অপূর্ণতা তাদের দমিয়ে রাখতে পারে না। অনেক সময় এই অপূর্ণতা নিয়ে জন্মানো মানুষগুলোই হয়ে ওঠে অন্যদের জন্য অনুকরণীয়। সুভদ্রা তেমনই একজন।

জন্ম থেকে দুই হাত নেই। কিন্তু সঙ্গে আছে অসাধারণ মানসিক শক্তি। মনের শক্তিতে পা দিয়ে সে লিখতে পারে, রান্না করতে পারে, খেতে পারে, করতে পারে তার দৈনন্দিন জীবনের সব কাজ। বিস্ময়কর হলেও সত্যি, ভারতের ওডিশায় জন্ম নেওয়া এই কিশোরী এখন তার এলাকার জন্য অনুকরণীয় দৃষ্টান্তে পরিণত হয়েছে।

অথচ জন্মের পর থেকে শত অপমান-অনাদর তাকে মুখ বুজে সহ্য করতে হয়েছে। স্কুলের সহপাঠী থেকে পাড়ার খেলার সাথী সকলের কাছে সুভদ্রা ছিল হাসির পাত্র। তবে এই হাসি-ঠাট্টা নিয়ে তার কোনো অভিযোগ নেই। কারণ সকলের হাসি-ঠাট্টাই তাকে মানসিক শক্তি অর্জন করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখিয়েছে।

সুভদ্রা বলেন, ‘আমার কোনো দুঃখ নেই। কারণ আমি সব কাজ করতে পারি। সবাই হাত দিয়ে যেসব কাজ করে আমি তা পা দিয়ে করি।’

সুভদ্রার বাবা বলেন, ‘সবাই প্রায় জিজ্ঞেস করে, পা দিয়ে কাজ করার ব্যাপারটি তোমরা তাকে কীভাবে শিখিয়েছ? কিন্তু আমরা তাকে কিছুই শেখাইনি। সে নিজে নিজেই সব শিখেছে।’ বর্তমানে স্থানীয় বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীতে পড়ছে সুভদ্রা। একদিন যে পিতা-মাতার কাছে সে ছিল বোঝা, আজ সেই সুভদ্রাই তাদের কাছে সম্পদ।