‘মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা ব্যয় সরকার বহন করবে’

আপডেটঃ ১০:২৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৭, ২০১৮

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে যারা কথা বলে সেই জামায়াত-শিবিরের নিবন্ধন বাতিল করা হবে।

এ ছাড়া জামায়াত-শিবিরের সন্তানরা যাতে কোনো ধরনের সরকারি চাকরি না পায় সেই লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। অতি দ্রুত তা বাস্তবায়ন করা হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে টাঙ্গাইল মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্ষ ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হয়েছে। কিন্তু যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার জন্য পরিকল্পনা করেছিলো তাদের বিচার এখনো করা হয়নি। তাদের বিচার না করা হলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে না।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারই ধারাবাহিকতায় দেশের বড় বড় হাসপাতালে ১৫ লাখ টাকা ও জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালে এক লাখ টাকা করে মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসার জন্য অগ্রিম দেওয়া হবে। মুক্তিযোদ্ধাদের শতভাগ চিকিৎসার খরচ সরকার বহন করবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. মইনুল ইসলাম, টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার খন্দকার জহুরুল হক ডিপটি, গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী শম্ভুরাম পাল প্রমুখ।