ছাত্রলীগ পুলিশের সহায়তায় মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা করেছে: মির্জা ফখরুল

আপডেটঃ ১০:২৩ অপরাহ্ণ | জুলাই ২২, ২০১৮

সি এন এ প্রতিবেদক: আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, পুলিশের সহায়তায় আদালত প্রাঙ্গনে মাহমুদুর রহমানের ওপর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে।

রবিবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘মাহমুদুর রহমান মামলায় হাজিরা দিতে কুষ্টিয়ায় গিয়েছিলেন। তিনি জামিনও পান। এসময় আদালত প্রাঙ্গনে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অবস্থান নেয়। যুবলীগও ছিল। ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের উপস্থিতি জেনে বিচারকের হস্তক্ষেপ চান মাহমুদুর রহমান। বিচারক আদালতে দায়িত্বরত ওসিকে ব্যবস্থা নিতে বলেন। মাহমুদুর রহমান নিজেও উপর মহলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। কিন্তু কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। বরং পুলিশ মাহমুদুর রহমানকে আদালত থেকে বের করে এনে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের হাতে তুলে দেয়।’

হামলার তদন্ত করে দোষীদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা মাহমুদুর রহমানকে কীভাবে আঘাত করে রক্তাক্ত করে দিয়েছে তা এরই মধ্যে আপনারা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখেছেন। গুরুতর আহত হওয়ার পরও তাকে চিকিৎসা নিতে দেওয়া হয়নি। একজন জনপ্রিয় সম্পাদকের ওপর এভাবে নৃশংস হামলার তীব্র নিন্দা জানাই এবং সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মাহমুদুর রহমান গণতন্ত্রের প্রশ্নে সব সময় সোচ্চার। তাই সরকার পরিকল্পিতভাবে হামলা করিয়েছে। এই সরকার দেশের সবকিছু ভেঙে দিয়েছে। মানুষের অধিকার হরণ করেছে। তীব্র আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই সরকারকে সরিয়ে দিতে হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, ড.আব্দুল মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দীন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।