পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হবে : শিক্ষামন্ত্রী

আপডেটঃ ৩:২৯ অপরাহ্ণ | জুন ১১, ২০১৮

সি এন এ  নিউজ,ডেস্ক: পর্যায়ক্রমে দেশের সব নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভুক্ত করা হবে বলে  জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

একই সঙ্গে তিনি আন্দোলনরত শিক্ষকদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, কষ্ট করে শিক্ষকদের আন্দোলন করার কোনো প্রয়োজন নেই। যোগ্য সব প্রতিষ্ঠানই এমপিওভুক্ত হবে।

সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টে এফসিসিআইয়ের দুটি মাইক্রোবাসের চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির দাবিতে গত বছর আন্দোলন করেছিলেন শিক্ষকেরা। কিন্তু সরকার থেকে আশ্বাস দেওয়া হয় শিক্ষকদের দাবির বিষয়টি নতুন বাজেটে বিবেচনা করা হবে। কিন্তু আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের শেষ বাজেটে এমপিও নিয়ে কোনো ঘোষণা না থাকায় গত রোববার থেকে ঢাকায় আন্দোলনে নেমেছেন নন-এমপিও বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা।

রোববার শিক্ষকদের এই আন্দোলনে পুলিশ বাধা দেয়। আজও সোমবার শিক্ষকদের কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দিয়েছে। এসব উল্লেখ করে মন্ত্রীর মতামত জানতে চাইলে তিনি বলেন, এমপিওভুক্তি নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আগে থেকেই কাজ করছে। এ কাজ এখনও চলছে। বাজেটে সব বিষয়ে বরাদ্দ থাকা প্রয়োজন নেই। এ বিষয়ে বরাদ্দ না থাকলেও মন্ত্রণালয়ের যে বরাদ্দ আছে এবং অর্থমন্ত্রীর যে থোক বরাদ্দ আছে সেখান থেকে এমপিওভুক্তি করানো সম্ভব।

তিনি বলেন, ‘এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। এটি নিয়ে কাজ চলছে।’

এ সময় শিক্ষা খাতে অনিয়ম, দুর্নীতির ছাড় হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘শিক্ষা খাতে কোনো প্রকার দুর্নীতি মেনে নেওয়া হবে না।’

প্রসঙ্গত, অর্থের অভাবে শিক্ষার সুযোগ বঞ্চিত দরিদ্র, মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দেশের সকল স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা ও আন্তরিকতায় ২০১০ সালে এই ট্রাস্ট ফান্ড গঠিত হয়।