বিশেষায়িত হাসপাতালে খালেদার চিকিৎসা চায় বিএনপি

আপডেটঃ ১০:৫৩ অপরাহ্ণ | জুন ১০, ২০১৮

সি এন এ প্রতিবেদক : খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের পরামর্শ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে না, এ অভিযোগ করে তাকে দ্রুত বিশেষায়িত হাসপাতালের সেবা দেওয়ার দাবি তুলেছে বিএনপি।

চিকিৎসার অভাবে বিএনপি নেত্রীর যেকোনো পরিস্থিতির জন্য সরকার দায়ী থাকবে, হুঁশিয়ারি দিয়ে দলটির নেতা রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘অবিলম্বে তার মুক্তি ও সুচিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে রাজপথ হবে অগণিত মানুষের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত।’

রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ করছি, তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা যেসব সুপারিশ করছেন, এমনকি আগেও সরকারি মেডিক্যাল বোর্ডের চিকিৎসকরা যেসব পরামর্শ দিয়েছিলেন সেগুলো বাস্তবায়ন করা হয়নি। অবিলম্বে দেশনেত্রীকে বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা না দিলে তার বড় ধরনের ক্ষতি হলে এর দায়-দায়িত্ব সরকারকেই বহন করতে হবে।’

‘আমি বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি জানাচ্ছি- অতি দ্রুত ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করে দেশনেত্রীকে চিকিৎসার সুযোগ দিন। অবিলম্বে অর্থাৎ ঈদের আগেই তাকে মুক্তি দিন’, বলেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও চিকিৎসা নিয়ে যে নির্মমতা প্রদর্শন করা হচ্ছে তাতে ক্ষমতাসীনদের জন্য রাজনীতির ময়দান শান্ত, নিরাপদ ও সুখময় হয়ে উঠবে না। সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে জনগণকে আর কাবু করা যাবে না। দিল্লির আয়নায় বিশ্বকে দেখতে গিয়ে বাংলাদেশের জাতীয় স্বার্থ প্রতিবেশীর পদতলে ঠেলে দিয়ে সরকার নিজেকে নির্ভার মনে করলেও কোনো লাভ হবে না।’

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খান কামালের দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘বিএনপি নেত্রীর চিকিৎসা ও অসুস্থতা নিয়ে কতটা অবহেলা করা হচ্ছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে সেটা পরিষ্কার হয়ে গেল। কারা কর্তৃপক্ষ সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করছে বলেই বন্দি খালেদা জিয়ার গুরুতর শারীরিক অসুস্থার বিষয়ে ভ্রুক্ষেপহীন থেকেছে- সেটিই প্রমাণিত হলো স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে।’

তিনি বলেন, ‘দেশনেত্রী কারাগারে অজ্ঞান হয়ে ৫-৭ মিনিট পড়ে ছিলেন। অথচ সেটি কারা কর্তৃপক্ষ জানে না। তার মানে এটাই প্রমাণিত হয়- বেগম জিয়া কারা কর্তৃপক্ষের কতখানি অবহেলার শিকার। সরকার বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রতি কতটা অমানবিক তা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে ফুটে উঠেছে।’