বাংলাদেশের মেয়েদের নতুন কোচ অঞ্জু জেইন

আপডেটঃ ৬:৫৭ অপরাহ্ণ | মে ০৫, ২০১৮

ক্রীড়া ডেস্ক : দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষেই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেবেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের কোচ ডেভিড ক্যাপেল। যিনি ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন। তার বিদায়ের পর বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব নিবেন ভারতের সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান অঞ্জু জেইন। তার তত্ত্বাবধানেই বাংলাদেশ দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেলবে জুলাইতে নেদারল্যান্ডসে। চলতি বছরের নভেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত হবে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

ছয় মাসের জন্য অঞ্জু জেইনকে নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ২১ মে তিনি বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব নেবেন। তিনি যোগ দেবেন তার স্বদেশী দেভিকা পালশিকর ও অনুজা দালভির সঙ্গে। যারা বর্তমানে সহকারী কোচ ও ফিজিওথেরাপিস্ট হিসেবে কাজ করছেন বাংলাদেশ দলের সঙ্গে।

বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ হওয়ার বিষয়ে অঞ্জু জেইন বলেন, ‘আসলে একটি দেশের জাতীয় দলের কোচ হওয়াটা খুবই রোমাঞ্চকর একটি ব্যাপার। এই মুহূর্তে সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং হল দলটিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের বৈতরণী পার করানো। আমাদের কোচিং স্টাফদের প্রধান দায়িত্ব হবে তাদের দক্ষতা বাড়ানো, বিশেষ করে অভিজ্ঞদের।’

মহিলা বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের আগে বাংলাদেশ দল ১০ দিনের সফরে আয়ারল্যান্ড যাবে। এরপর জুলাইতে নেদারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে অংশ নিবে। বাংলাদেশ দলের প্রতিপক্ষ হিসেবে রয়েছে আয়ারল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, উগান্ডা, থাইল্যান্ড ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। বাছাইপর্ব থেকে দুটি দল শীর্ষ আটদলের সঙ্গে যুক্ত হবে। ২০১৬ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বাংলাদেশ চার ম্যাচের একটিতেও জিততে পারেনি।

অঞ্জু জেইন ভারতের লেভেল-বি সার্টিফিকেটধারী কোচ। এর আগে তিনি বিধর্বের মহিলা দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তার আগে তিনি ভারতের নারী ক্রিকেট দলকে ২০১২ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ও ২০১৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে তত্ত্বাবধান করেছেন।

দ্বিতীয় কোনো ভারতীয় হিসেবে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হতে যাচ্ছেন অঞ্জু জেইন। তার আগে ২০১১ ও ২০১৩ সালে দুই মেয়াদে মমতা মাবেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন।