আপত্তিকর অবস্থায় আটক প্রেমিক যুগলের বিয়ে

আপডেটঃ ৩:৫০ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৬, ২০১৮

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক:ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) গেস্ট হাউজ মমতাজ ভবন থেকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক রাশেদুল ইসলাম ও তার প্রেমিকাকে অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হয়েছে। বৃহস্পতিার দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের থানা গেটস্থ কর্মচারী ক্লাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এ সময় উভয় পরিবারের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রতন শেখ জানান, বুধবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ওই প্রেমিক যুগলকে থানায় সোপর্দ করলে উভয় পরিবারের অভিভাবকদের বিষয়টি জানানো হয়। রাতে ঝড়-বৃষ্টির কারণে অভিভাবকরা আসতে পারেননি। রাতে আটকদের পৃথক কক্ষে থানায় রাখা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে অভিভাকরা আসলে সকলের সম্মতিতে এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান  বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় সৃজনশীল শিক্ষার উর্বর ভূমি। এখানে কোনো ধরনের নোংরামি করে কেউ পার পাবে না।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মমতাজ ভবনের ৩০৯ নং কক্ষ থেকে রাশেদুল ও তার প্রেমিকাকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করেন প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান। তাদের গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ডু উপজেলায়।

জানা যায়, রাশেদুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দিন মজুর হিসেবে কাজ করছেন। অতি সম্প্রতি রাশেদুলকে গেস্ট হাউজ রক্ষাবেক্ষণের দায়িত্ব দেয়া হয়। তাকে মেয়েসহ গেস্ট হাউজে প্রবেশ করে দরজা লাগিয়ে দিতে দেখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আনসার সদস্য আমিনুর রহমান। পরে তিনি জানালা দিয়ে তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে প্রক্টরকে খবর দিলে তিনি এসে তাদের আটক করেন।