দ্রুত ক্যান্সার শনাক্তে জনপ্রিয় হচ্ছে পেট সিটি

আপডেটঃ ৩:৩৬ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৬, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : ক্যান্সার চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ দ্রুত ক্যান্সার শনাক্ত করে চিকিৎসা দেওয়া। কারণ ক্যান্সার যত দেরিতে শনাক্ত হবে রোগীরও চিকিৎসা পেতে দেরি হয়। এ কারণে ক্যান্সার দেহে ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

তাই সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে চিকিৎসা বিজ্ঞান, বাড়ছে প্রযুক্তির ব্যবহার। সেই প্রযুক্তির অংশ হিসেবে বর্তমান সময়ে দ্রুত ক্যান্সার শনাক্তে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে পেট (পজিট্রন ইমিশন টোমোগ্রাফি) সিটি।

চিকিৎসকরা বলেছেন, এটি আধুনিক প্রযুক্তির অন্যতম উদাহরণ। অনেক সময় রোগীর জীবন ও মৃত্যুর মাঝে সহায়ক ভূমিকাটাই পালন করে

চিকিৎসকরা জানান, পেট সিটি অন্যান্য ইমেজিং টেকনোলজি যেমন- এক্স-রে, সিটি স্ক্যান, আলট্রাসনোগ্রাম, এমআরআই প্রভৃতি প্রযুক্তি থেকে ভিন্নমাত্রার। কারণ ওগুলো শুধু শরীরে টিউমারের আকার, আকৃতি, অবস্থান সম্পর্কে ধারণা দেয়। কিন্তু পেট সিটি ক্যান্সার (ম্যালিগন্যান্ট টিউমার) বা ক্যান্সার নয়- (বিনাইন টিউমার) দুটো সম্পর্কেই ধারণা দিতে সক্ষম।

পজিট্রন ইমিশন টোমোগ্রাফি টিউমার বা শরীরে অ্যানাটমিকাল অ্যাবনরমালিটি বা ক্যান্সার আক্রান্ত স্থান শনাক্ত করতে পারে। সেই সঙ্গে পারে শরীরের প্রতিটি কোষের অ্যাবনরমাল মেটাবলিক এবং বায়োকেমিক্যাল অ্যাক্টিভিটি শনাক্ত করতে। এখানে ব্যবহৃত হয় একটি রেডিও অ্যাক্টিভ ড্রাগ, বা মার্কার (FDG), যেটি শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয়; কিন্তু এটি কোষের অ্যাবনরমাল মেটাবলিক এবং বায়োকেমিক্যাল অ্যাক্টিভিটি শনাক্ত করে।

সাধারণত, ক্যান্সার শনাক্তকরণ (ফুসফুস, ব্রেইন, প্যানক্রিয়াস, লিভার, ব্রেস্ট, মেলানোমা, লিম্ফমা, থাইরয়েড, কোলন ক্যান্সার); টিউমার কতটুকু আক্রমণাত্মক তা মূল্যায়ন করা; টিউমার চিকিৎসা/থেরাপি দেওয়ার পর তার সফলতা নিরূপণ করা; টিউমার বিনাইন/ম্যালিগন্যান্ট নির্ণয়সহ চিকিৎসা বিজ্ঞানে আধুনিক প্রযুক্তির এক উদাহরণ হিসেবে কাজ করছে পেট সিটি।

২০১২ সালের পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, তখন বিশ্বে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১৪ দশমিক ১ মিলিয়ন আর মৃত্যুহার ছিল ৪ দশমিক ২ মিলিয়ন। আর ধারণা করা হচ্ছে, ২০৩০ সাল নাগাদ বিশ্বে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা দাঁড়াবে ২১ দশমিক ৭ মিলিয়নে যেখানে মৃত্যুহার হবে ১৩ মিলিয়ন।

চিকিৎসকরা বলছেন, যেহেতু পেটসিটির মাধ্যমে দ্রুত ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব তাই এ পদ্ধতিটি হতে পারে ক্যান্সার নিরাময়ের কার্যকরী মাধ্যম।

থাইল্যান্ডের ব্যাংকক হসপিটাল ভালো মানের পেট সিটি মেশিনে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছে, তারা ব্যবহার করছে ফোর্থ জেনারেশন ফ্লো মেশিন। যা আগের জেনারেশনের মেশিনগুলোর চেয়ে অনেক বেশি পরিষ্কার ইমেজ দেয় এবং সঠিকভাবে ক্যান্সার নির্ণয় করে। থাইল্যান্ডের ব্যাংকক হসপিটাল ছাড়া অন্য কোনো বেসরকারি হাসপাতালে ফোর্থ জেনারেশনের এই পেটসিটি মেশিন নেই। এটা এতটাই কার্যকর যে, বিরতিহীন ছবি তোলার কারণে শরীরের যেকোনো স্থানে লুকিয়ে থাকা ক্যান্সার কোষ ধরা পড়তে বাধ্য।