বৃষ্টিভেজা পয়লা বৈশাখ

আপডেটঃ ৯:১৮ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ১৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : পয়লা বৈশাখ। দিনটি শুরু হয়েছে বেশ ভালোভাবে। কিন্তু সেই ভালো আর ভালো রইল না অনেকের কাছে যখন বিকেলে ঝড়-বৃষ্টি হলো। তবে যাদের বৃষ্টিতে ভিজতে ভালো লাগে তারা এটাকে মনে করেছেন বৈশাখী উপহার।

বিকেলে যে বৃষ্টি হতে পারে তা অনেকেই অনুমান করতে পেরেছিলেন। তারা দুপুরের পরপরই ঘরে ফিরে গেছেন। আবহাওয়া অধিদপ্তরও আগে জানিয়েছেল যে, বৃষ্টি হতে পারে। তবে কেউ কেউ মনে মনে চাচ্ছিলেন, বিকেলে যেন বৃষ্টি নামে। দুপুরের আগে আহমদ নূর ফেসবুকে লিখেছেন, প্রখর তাপে অনুভব হচ্ছে- আজ থেকে বৈশাখ শুরু। এখন ঝড়ের অপেক্ষা। বিকেলে বৃষ্টি শুরুর পর তিনি লেখেন- যদি বর্ষে/ নববর্ষে/ মন নাচে/ চিত্তাকর্ষে…।

বৈশাখে বৃষ্টিতে ভিজে আনন্দ করার পর এক রঙের পাঞ্জাবি পরা সব বন্ধুর ছবি পোস্ট করে তাহমিদ লিখেছেন- বৃষ্টিভেজা বৈশাখ। তবে মজা হয়েছে প্রচুর। সবাই নিল। ভাই ব্রাদার একসাথে।

বৃষ্টি শুরুর পর বৃষ্টি নিয়ে কেউ কেউ করেছেন রসিকতা। রফিকুল ইসলাম রনি লিখেছেন, ‘বেরসিক বৃষ্টি আটা ময়দা সব ধুয়ে দিলো’। জাহা শিহাব লিখেছেন, ‘অফিস আছে… ঘুরতে পারব না- জেনে যারা মজা নিলেন! তারা বৃষ্টিতে কেমন ঘুরলেন? শাড়ি-পাঞ্জাবি সব ঠিকঠাক?’

মডেল বন্যা সিদ্দিকী লিখেছেন, ‘যাক, আল্লাহ দোয়া কবুল করেছেন, পহেলা বৈশাখে বৃষ্টি শুরু। সকাল থেকে এলে পুরা দোয়া কবুল হতো।’

বৃষ্টি যাদের বিনোদনে বাধা হয়েছে, তারা এটাকে দেখছেন নেতিবাচকভাবে।

তমিস্রা তনু বেড়াতে যাওয়ার প্রস্তুতি নেওয়ার তিনটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘বৃষ্টিভেজা বৈশাখ কার অভিশাপ, বাইরে যেতে পারলাম না।’

সাদিয়া আফরোজ লিখেছেন, এই ভোতরা জীবনে বৃষ্টিও শত্রু।

বৃষ্টিতে যেমন অনেকে বাইরে বের হতে পারেননি, তেমনই বাইরে থাকা অনেকের ঘরে ফিরতে হতে হয়েছে ভোগান্তি। সড়কের অনেক জায়গায় পানি জমে গেছে। ফলে যানচলাচল ও মানুষের চলাচলে ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে।

সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ঢাকায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৩০ মিলিমিটার। বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৯৪ শতাংশ। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৫ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক ছিল- দক্ষিণ/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৫-১০ কিলোমিটার, যা অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়ায় পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিকে থেকে ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার।

সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় বিজলি চমকানোসহ অয়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।