রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে সাকিবদের কাছে হারল মুস্তাফিজরা

আপডেটঃ ৯:২২ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ১৩, ২০১৮

ক্রীড়া ডেস্ক : সমীকরণটা খুব সহজ ছিল সাকিব আল হাসানদের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের জন্য। মুস্তাফিজদের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দেওয়া ১৪৭ রান তাড়া করে জয় পেতে ৩০ বলে ২৭ রান লাগত তাদের। হাতে ৫টি উইকেট।

১৬তম ওভার থেকে ম্যাচে ফিরল মুম্বাই। প্রথম দুই ওভারে ২০ রান দেওয়া মুস্তাফিজ তৃতীয় ওভারে দিলেন মাত্র ৩ রান। চাপে রাখলেন দিপক ‍হুডা ও ইউসুফ পাঠানকে। ১৭তম ওভারে ৯ রান তুলে চাপ কিছুটা কমিয়ে আনেন দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। কিন্তু ১৮তম ওভারে জসপ্রিত বুমরাহ ৩ রানে ২ উইকেট নিলে ম্যাচে নাটকীয়তা তৈরি হয়।

শেষ ১২ বলে হায়দরাবাদের প্রয়োজন ১২ রান। রোহিত শর্মা বল দেন মুস্তাফিজকে। ১ রানে ২ উইকেট নিয়ে মুম্বাইকে জয়ের স্বপ্ন দেখান বাংলাদেশের পেসার। শেষ ওভারে প্রয়োজন ১১ রান। প্রথম বলেই দিপক হুডা কভারের ওপর দিয়ে মারলেন ছক্কা। পরের চার বলে আরও ৪ রান।

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে শেষ বলে প্রয়োজন ১ রান। অস্ট্রেলিয়ার লেট অর্ডার ব্যাটসম্যান স্টানলেক বেন কাটিংকে চার মেরে হায়দরাবাদকে ১ উইকেটে জয় উপহার দেন। টানা দ্বিতীয় ম্যাচ জিতল সাকিবদের হায়দরাবাদ। আর আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা এখনও প্রথম জয়ের খোঁজে।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৪৭ রান তুলে মুম্বাই। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন এভিন লুইস। ২৮ রানের দুটি ইনিংস খেলেন সূর্যকুমার যাদব ও কাইরন পোলার্ড। বল হাতে সাকিব আল হাসান ৩৪ রানে নেন ১ উইকেট। ২টি করে উইকেট পান সন্দীপ শর্মা, সিদ্ধার্থ কউল ও স্টানলেক। রশিদ খান ১ উইকেট পেলেও ৪ ওভারে দেন মাত্র ১৩ রান। তাতেই ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠে তার হাতে।

জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে ধাওয়ান ও সাহা উদ্বোধনী জুটিতে ৬২ রান করেন। এরপর ৮৯ রান পর্যন্ত যেতেই ৪ উইকেট হারায় মুম্বাই। নায়ক হওয়ার সুযোগ ছিল সাকিবের কিন্তু ১২ রানের বেশি করতে পারেননি। স্পিনার মারকান্দে ২৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে হায়দরাবাদের ব্যাটিং অর্ডার ভেঙে দেন। এরপর মুস্তাফিজ, বুমরাহরা দলে ম্যাচে ফিরালেও জয় পায়নি মুম্বাই।