‘রসায়নটা মিলে গেলে সেটা ভালো হতেই থাকে’

আপডেটঃ ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক :ভারতীয় বাংলা সিনেমার দর্শকপ্রিয় অভিনয়শিল্পী প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। আলাদা আলাদা অনেক জনপ্রিয় সিনেমা যেমন উপহার দিয়েছেন, তেমনি জুটি বেঁধে পেয়েছেন আকাশচুম্বী দর্শকপ্রিয়তা। এ জুটির ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ’-এর মতো বাণিজ্যিক সিনেমা যেমন রয়েছে তেমনি আছে ‘উৎসব’-এর মতো অন্যধারার সিনেমাও। এক সময় তাদের সম্পর্ক নিয়ে কানাঘুষাও কম হয়নি।

২০০১ সালে ‘জামাইবাবু জিন্দাবাদ’ সিনেমায় প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণা জুটি বেঁধে অভিনয় করেছিলেন। এরপর কোনো এক অজ্ঞাত কারণে ১৪ বছর একসঙ্গে পর্দায় দেখা যায়নি তাদের। ২০১৫ সালে ‘প্রাক্তন’ সিনেমার মাধ্যমে একসঙ্গে ফিরেন তারা।

সম্প্রতি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এ সময় প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত জুটির সফলতার রহস্য সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত বলেন, ‘প্রসেনজিৎ বাদে অন্য যেসব নায়কদের সঙ্গে অভিনয় করেছি সেসব সিনেমাও সফল হয়েছে। তবে একেকটা জুটি মানুষের চোখে লেগে থাকে। যেগুলোর আর কোনো বিকল্প হয় না। আর একটা সময় রসায়নটা মিলে গেলে সেটা ভালো হতেই থাকে। সেটাকে নতুন করে আর তৈরি করতে হয় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘‘১৪ বছর পর যখন ‘প্রাক্তন’ সিনেমায় আমি আর প্রসেনজিৎ অভিনয় করলাম তখন মনে হয়েছে- ১৪ বছর নয় ১৫দিন পর আমরা একসঙ্গে কাজ করছি। আসলে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালে কারো বোঝার উপায় নেই আমার আর প্রসেনজিতের মধ্যে যোগাযোগ আছে কি নেই।’’

‘প্রাক্তন’ সিনেমার পর আবারো একসঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ‘দৃষ্টিকোণ’ নামের এ সিনেমাটি পরিচালনা করছেন কৌশিক গাঙ্গুলি। এ ছাড়াও ৯ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত সিনেমা ‘ভালোবাসার বাড়ি’। এটি পরিচালনা করেছেন তরুণ মজুমদার।