বিএসপিএ’র বর্ষসেরা হলেন সাকিব

আপডেটঃ ৯:১৪ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ০৭, ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক : জমকালো আয়োজনে হয়ে গেলো কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড ২০১৭’র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। যেখানে ২০১৭ সালের বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের পুরস্কার জিতে নিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার, বাংলাদেশের টেস্ট ও টি টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।  তিনি পেছনে ফেলেছেন এশিয়ান এয়ারগান চ্যাম্পিয়নশিপে দশ মিটার এয়ার রাইফেল ইভেন্টের জুনিয়র বিভাগে রৌপ্যজয়ী অর্নব সারার লাদিফ ও ফুটবলার জাফর ইকবালকে।

সাকিব ২০১৭ সালে টেস্টে ৬৬৫ রান ও ২৯ উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন। ওয়ানডেতে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্সেও আছে শতরান, মাহমুদুল্লাহর সঙ্গে ২২৪ রানের জুটি।

এদিকে দর্শকদের ভোটে সাকিব, মাহমুদউল্লাহ ও ফুটবলার জাফর ইকবালকে পেছনে ফেলে পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

অন্যান্য ক্যাটাগোরির পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন :
পপুলার চয়েজ অ্যাওয়ার্ড : মাশরাফি বিন মুর্তজা
বর্ষসেরা ফুটবলার : জাফর ইকবাল
বর্ষসেরা দাবাড়ু : এনামুল হোসেন রাজীব
বর্ষসেরা টেবিল টেনিস খেলোয়াড় : সোনম সুলতানা সোমা
বর্ষসেরা শ্যুটার : অর্নব সারার লাদিফ
বর্ষসেরা সাঁতারু : জোনায়না আহমেদ
উদীয়মান অ্যাথলেট : জহির রায়হান
বর্ষসেরা কোচ : সালাউদ্দিন (ক্রিকেট)
বর্ষসেরা সংগঠক : মাহফুজা আক্তার কিরণ (ফুটবল)
তৃণমূলের ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব : মফিজ উদ্দিন (ফুটবল)
বর্ষসেরা স্পন্সর :  রবি,
বিশেষ সম্মাননা : আব্দুস সালাম মুর্শেদী (ফুটবল) ও বাদল রায় (ফুটবল)।

বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, এমপি বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদের নাম ঘোষণা করেন ও ট্রফি ও সার্টিফিকেট তুলে দেন। উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব ক্রীড়া সাংবাদিক সংস্থার এশিয়া অঞ্চলের (এআইপিএস) সহ সভাপতি সাবা নায়েকে, স্কয়ার টয়লেট্রিজের হেড অব মার্কেটিং মালিক মোহাম্মদ সাঈদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসপিএ) সভাপতি জনাব মোস্তফা মামুন।

কুল-বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ডকে কেন্দ্র করে ক্রীড়াঙ্গনের তারার মেলা বসেছিল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে। বিভিন্ন খেলার সাবেক-বর্তমান তারকারা ছাড়াও যেখানে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া সংগঠক, বিভিন্ন ফেডারেশনের কর্মকর্তারা। উপস্থিত ছিলেন ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, সাবেক ফুটবলার আশরাফউদ্দিন আহমেদ চুন্নু, জাকারিয়া পিন্টু, কায়সার হামিদ, ইলিয়াস হোসেন, সত্যজিত দাস রুপু, ক্রীড়া সংগঠক তরফদার রুহুল আমিন, সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ক রকিুবুল হাসান, ক্রিকেট কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম, জালাল আহমেদ চৌধুরী, সংগঠক রইস উদ্দিন আহমেদ, হকি তারকা আব্দুস সাদেক, সাতবারের দ্রুততম মানব মোশাররফ হোসেন শামীম, সাবেক অ্যাথলেট সাইদুর রব, শামীমা সাত্তার মিমু, সাঁতারু মাহফুজা খাতুন শিলা, ভারোত্তলক মাবিয়া আক্তার সীমান্ত, সাবেক শ্যুটার সাবরিনা সুলতানা, সাবেক ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় কামরুন্নাহার ডানা, দাবাড়ু গ্র্যান্ডমাস্টার নিয়াজ মোরশেদ, রানী হামিদ, সাবেক টেবিল টেনিস খেলোয়াড় সাইদুর রহমান সাদী, দক্ষিণ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল।

অনুষ্ঠানে ভিন্নধর্মী পারফরম্যান্স দেখান বিকেএসপির জিমন্যাস্টরা। সঙ্গীতের মূচ্ছর্ণার সাথে তাদের শারীরিক কসরত চোখ ধাঁধিয়ে দেয় উপস্থিত দর্শকদের। এছাড়া সঙ্গীত পরিবেশন করেন জাতীয় দলের ফুটবলার ওয়ালি ফয়সাল। তার কন্ঠে ‘আমরা করবো জয়’ গানটি দেশের ক্রীড়াঙ্গনে সাফল্য আনতে নতুনভাবে উদ্দীপ্ত করে। এছাড়া ফ্রি স্টাইল ফুটবলের কৌশল দেখান ময়মনসিংহের ছেলে মুদাব্বির। আর নাচের তালে শিল্পীরা বিভিন্ন খেলাকে ফুটিয়ে তোলেন।

দেশের ক্রীড়া সাংবাদিক ও ক্রীড়া লেখকদের সবচেয়ে পুরনো সংগঠন বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসপিএ) ১৯৬৪ সাল থেকে সেরা ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংশ্লিষ্টদের পুরস্কৃত করার ধারা চালু করেছিল। গত অর্ধ-শতাব্দিরও বেশি সময় ধরে কয়েকশত ব্যক্তি, সংস্থা, প্রতিষ্ঠান পেয়েছে মর্যাদার এই পুরস্কার।