বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে ড্রাগন সোয়েটার

আপডেটঃ ৫:৩৪ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ০৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক :হঠাৎ করেই শেষ সপ্তাহজুড়ে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীদের কাছে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে পছন্দের শীর্ষ উঠে আসে ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং লিমিটেড। ফলে সপ্তাহজুড়ে বস্ত্র খাতের কোম্পানিটির শেয়ার মূল্যে বড় ধরনের উত্থান ঘটেছে।

অন্যদিকে ক্রেতাদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসায় অনেক বিনিয়োগকারী কোম্পানিটির শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন। ফলে প্রতি কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে প্রায় ২০ কোটি টাকা করে।

সপ্তাহের চার কার্যদিবসে (১-৪ জানুয়ারি) প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৬৭ কোটি ৯১ লাখ টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৯১ লাখ টাকা।

আর কোম্পানিটির শেয়ার বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের কেন্দ্র বিন্দুতে চলে আসায় মূল্যে বড় ধরনের উত্থান ঘটেছে। সপ্তাহজুড়ে ড্রাগন সোয়েটারের শেয়ার মূল্য বেড়েছে ২২ দশমিক ৮১ শতাংশ। আর টাকার অঙ্কে বেড়েছে ৩ টাকা ৯০ পয়সা।

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ১৭ টাকা ১০ পয়সা।

এদিকে ড্রাগন সোয়েটারের শেয়ার দাম টানা বাড়ার কারণে ডিএসই থেকে কোম্পানিটিকে নোটিশ পাঠানো হয়। তবে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সম্প্রতি শেয়ারের যে অস্বাভাবিক দাম বেড়েছে তার পিছনে অপ্রকাশিত কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই।

ডিএসইর মাধ্যমে কোম্পানিটির প্রকাশিত সর্বশেষ আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে ড্রাগন সোয়েটের মুনাফ আগের বছরের তুলনায় কম হয়েছে। চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ৫৩ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৫৪ পয়সা।

ড্রাগন সোয়েটারের পরেই শেষ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের পছন্দের তালিকায় ছিল লিগাসি ফুটওয়্যার। সপ্তাহজুড়ে এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম বেড়েছে ১৩ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ। এর পরেই রয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপয়ার্ড। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ১১ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

এছাড়া শেষ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের শীর্ষ ১০ কোম্পানির তালিকায় থাকা বারাকা পাওয়ারের ১০ দশমিক ১৭ শতাংশ, সায়হাম টেক্সটাইলের ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ, মোজাফ্ফর হোসেন স্পিনিংয়ের ৮ দশমিক ৯০ শতাংশ, ইভিন্স টেক্সটাইলের ৮ দশমিক ৫৪ শতংশ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ৮ দশমিক ৪৮ শতাংশ, ইস্টার্ন কেবলসের ৭ দশমিক ৮২ শতাংশ এবং মুন্না সিরামিকসের ৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ দাম বেড়েছে।