ইতালিতে ফেসবুকে পরিচয় অতঃপর বিয়ে

আপডেটঃ ১০:৩৯ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭

সি এন এ নিউজ,ডেস্ক :সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেলে-মেয়েদের বন্ধুত্ব হওয়াটা স্বাভাবিক। এ বন্ধুত্ব থেকে অনেকেই আবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এরকমই একটি ঘটনার জন্ম দিয়েছেন ইতালি প্রবাসী দুই বাংলাদেশি সুহেদ-রাসেদা।

দীর্ঘ তিন বছর বন্ধুত্বের পর গত ২৪ ডিসেম্বর ভেনিসের একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টে জীবনসঙ্গী হিসেবে আবদ্ধ হয়েছেন সুহেব আহমেদ ও রাসেদা।

সুহেব মিলানে বাস করেন; বাড়ি সিলেটের জালালাবাদ উপজেলার মোগলগাঁও ইউনিয়নে। বাবা সামসুদ্দোহা ও মা সুফিয়া বেগম।

italy

অপরদিকে রাসেদা আহমেদ বসবাস করেন ভেনিস শহরে। বাড়ি শরিয়তপুরের নড়িয়া ইউনিয়নে। পিতা সোরাফ হাওলাদার।

বিয়ের ব্যাপারে রাসেদার বড় ভাই ইসমাইল হোসেন স্বপন জানান দীর্ঘদিন আগে একে অপরের সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে প্রথমে বন্ধুত্ব ও পরে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ব্যাপারটি জানাজানি হলে উভয় পারিবারের মতামতে বিয়ের সিদ্ধন্ত চূড়ান্ত হয়। এরপর ২৪ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

italy

বিয়ের ব্যাপারে সুহেদ বলেন, আমি খুবই সুখী ভালোবাসার মানুষটিকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়ে। তিনি আরও বলেন মন থেকে ভালোবাসলে তা কখনও বিফলে যায় না।

কনে রাসেদা বলেন, পৃথিবীতে আমার মত আর কেউ সুখী নেই। যাকে ভালোবেসেছি তাকে বিয়ে করেছি। আমরা সংসার জীবনে সুখী হতে সবার কাছে দোয়া চাই।