পার্লার ব্যবসায়ী নারীকে অপহরণের পর গণধর্ষণ

আপডেটঃ ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭

সিএনএ নিউজ,মুন্সীগঞ্জ :ঢাকার ধোলাইপাড় এলাকা থেকে এক গৃহবধূকে অপহরণ করে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে নিয়ে এসে ধর্ষণ করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার আটপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানান, অপহরণকারীরা অপহৃত ওই গৃহবধূকে বৃহস্পতিবার রাত থেকে পালাক্রমে আটপাড়া এলাকার একটি জমিতে ৫ জন মিলে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে আটপাড়া গ্রামের খালেক মাদবরের বাড়িতে আটকে রাখে। শুক্রবার দুপুরে আটকে থাকা গৃহবধূ আত্মচিৎকার করলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে এবং পুলিশকে খবর দেয়। এসময় একজনকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশকে সোপর্দ করে।

শ্রীনগর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আলী মনসুর জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে পার্লার ব্যবসায়ী গৃহবধূ মেশিন ক্রয় করার জন্য বেরুলে পথিমধ্যে কয়েজন দুর্বৃত্ত তাকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। এবং রাতেই গৃহবধূর স্বামীর কাছে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরবর্তীতে শুক্রবার সকালে অপহরণকারীদের বিকাশের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা ও মেশিন কেনার ২৫ হাজার টাকা নগদ দেয়া হয়। এসময় গৃহবধূর পরিহিত স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল ফোন ও ছিনিয়ে নেয় অপহরণকারীরা।

তিনি আরও জানান, ঢাকা থেকে অপহরণকারী জামাল হোসেনকে আটক করা হয়েছে। সে আটপাড়ার বাড়িগাঁও গ্রামে বাসিন্দা। এদিকে আটকে রাখা বাড়ির মালিকের ছেলে মফিদুল ইসলাম (৩২) পলাতক রয়েছে।

শ্রীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। একজনকে আটক করা হয়েছে। বিস্তারিত খতিয়ে দেখা হচ্ছে।