রৌমারীতে মাদক বিক্রেতা ইউপি সদস্যসহ আটক ২

আপডেটঃ ৫:৪৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৪, ২০১৭

মোস্তাফিজুর রহমান তারা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:কুড়িগ্রামের রৌমারীতে মাদক ব্যবসায়ী ও বিক্রেতা ইউপি সদস্যসহ দুই জনকে আটক করে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার বাঘের হাট নামক বাজার স্থান ও বংশির চর কাঁচা রাস্তার মোড় এলাকা থেকে দু’জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ।আটককৃত ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের টাপুর চর গ্রামের আলহাজ শুকুর আলী মেম্বারের পুত্র বর্তমান ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম (৪২) ও দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের তেখানি গ্রামের সোরহাবের পুত্র জাকির হোসেন (৩৫)।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, দীর্ঘদিন ধরে মাদক হাট হিসেবে চিহ্নিত নতুন বাঘের হাট নামক বাজারটি। প্রতিনিয়ত এই বাজারে হাত বাঁড়ালে পাওয়া যায় ইয়াবা ও গাঁজা। এর মূল হোতা জাকির হোসেন নামের এক মাদক ব্যবসায়ী। কিন্তু অবশেষে বিভিন্ন স্থান থেকে বাজারটি নিয়ে বিভিন্নমহল সমালোচনা করে আসছে। প্রতিদিন নতুন বাঘের হাট বাজারে দূর দূরান্ত থেকে বিভিন্ন রকমের মাদক কিনতে মাদক কারবারিরা আসে।এ বিষয় রৌমারী থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ফারুক হোসেন শাহ্ জানান, দীর্ঘদিন ধরে এই চিহ্নিত ব্যক্তিরা মাদক ব্যবসার সঙ্গে জরিত। পরে গোপন সংবাদের মাধ্যমে ভোররাতে ঝুটিকা অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রেতা ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলামের কাছ থেকে ২২ পিস ও জাকির হোসেনের কাছ থেকে ৬৫ পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে আটক করা হয়। তিনি আরো বলেন, অভিযান কালে উপস্থিত ছিল ওসি স্যারসহ থানাপুলিশের একটি দল। মাদক ব্যবসায়ী জাকির হোসেনর বিষয় জানতে চাইলে দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি আমির হোসেন জানান, জাকির হোসেন নামের ব্যক্তি বর্তমান ইউনিয়ন শাখার যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য হিসেবে নিয়োজিত রয়েছে।এ প্রসঙ্গে রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের বলেন, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে দুইজন মাদক ব্যবসায়ীকে ইয়াবাসহ হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে আটককৃত দুই মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১৯ (১) এর ৯ (খ) ধারায় মামলা করা হয়। পরে আটককৃত দুই মাদক বিক্রেতাকে কুড়িগ্রাম জেলহাতে প্রেরণ করা হয়েছে।