গৃহায়ণ অর্থায়ন মেলা শুরু

আপডেটঃ ২:৫১ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৯, ২০১৭

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স করপোরেশনের (বিএইচবিএফসি) আয়োজনে শুরু হলো গৃহায়ণ অর্থায়ন মেলা ২০১৭।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এ মেলার উদ্বোধন করেন। মেলার সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে রিহ্যাব। তিন দিনব্যাপী এই মেলা আজ থেকে শুরু হয়ে আগামী ২১ অক্টোবর শেষ হবে।

মেলায় এবার মোট ৩১টি ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান, ৭টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ সর্বোমোট ৪৭টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য মেলা উন্মুক্ত থাকবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশে ৪ শতাংশের বেশি সুদ নেই হাউজ বিল্ডং লোনে। আমাদের দেশে সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে থাকলেও যা রয়েছে তা যৌক্তিক নয়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মতো জনবহুল একটি দেশে সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করা একটি কঠিন কাজ। দেশের শতকরা ৭২ভাগ লোক গ্রামে বসবাস করে এবং দেশের মোট গৃহের ৮১ভাগ গ্রামে অবস্থিত। এই ৮১ ভাগ গৃহের মধ্যে ৮০ভাগই নিম্নমানের কাঠামো। জনসংখ্যা বৃদ্ধির কারণে যত্রতত্র বাড়ি নির্মাণ করায় প্রতিদিন প্রায় ২৩৫ হেক্টর কৃষি জমি নষ্ট হচ্ছে। তাই সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করতে হলে শুধু নগরে বসবাসকারীদের জন্য নয়, গোটা দেশের একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন জরুরি।

বিএইচবিএফসি চেয়ারম্যান বলেন, লোনের বিষয়ে জনগণের মনে যে প্রশ্ন থাকে তা স্পষ্ট করতে হবে। হাউজ বিল্ডং এ লোনের সুদের ওপর সুদ হয় না। এগুলো সকলকে জানাতে হবে। তাই দরকার প্রচার প্রচারণা।

এ ছাড়া ঋণ দেওয়ার বিষয়ে আরো স্বচ্ছতা আনার জন্য আগামী বছর থেকে টপ সিট করা হবে। এর মাধ্যমে কারা লোনের আবেদন করেছে, কারা পেল, কারা পেল না, কেন পেল না তার বিবরণ থাকবে বলেও জানান তিনি।

রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলামীন বলেন, আবাসনের জন্য দেশের মানুষকে কীভাবে সিঙ্গেল ডিজিট সুদে ঋণ দেওয়া যায় তা ছিল আমাদের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। হাউজ বিল্ডিং যা শুরু করেছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএইচবিএফসি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেবাশীষ চক্রবর্তী। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. ইউনূসুর রহমান, রিহ্যাবের সহ-সভাপতি (১ম) লিয়াকত আলী ভূইয়া, মেলা উদ্‌যাপন কমিটির আহবায়ক মো. জাহিদুল হক প্রমুখ।