‘সরকার বিএনপির সাংবিধানিক অধিকার হরন করেছে’

আপডেটঃ ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ১২, ২০১৭

সি এন এ নিউজ,প্রতিবেদক :সরকার বিএনপির সভা-সমাবেশের মতো কর্মসূচিতে বাধা দিয়ে ‘সাংবিধানিক অধিকার হরণ’ করছে বলে মনে করছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক অধিকার হরণ করে দেশে একচ্ছত্র আধিপত্য বজার রাখতে চায়। সেজন্যই বর্তমান শাসকগোষ্ঠী বড় কিংবা ছোট সভা সমাবেশ বা মিছিলকেও বরদাস্ত করতে পারছে না। আর এজন্যই পুলিশ ও দলীয় সন্ত্রাসীদের লেলিয়ে দেয়া হয়েছে বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর হামলা এবং গ্রেপ্তার করে কারান্তরীণ রাখতে।’

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে নোয়াখালীতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত মিছিলে পুলিশ বেপরোয়া গুলিবর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। এতে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের অনেক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি মির্জা ফখরুলের।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করে সারাদেশে বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদেরকে পর্যদুস্ত করতে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী এখন আরো বেশী মাত্রায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। যেকোন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও পুলিশি হামলা চরম আকার ধারণ করেছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নোয়াখালীতে নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও গ্রেপ্তার দেশব্যাপী চলমান আওয়ামী সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নিপীড়নেরই অবিচ্ছেদ্য অংশ। বর্তমান সরকারের অন্যায় ও জুলুম নির্যাতনের বিরুদ্ধে দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়া এখন অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে।’