নরসিংদীর পলাশে ঐতিহাসিক জনতা জুট মিলস্ জাতীয় রপ্তানিতে অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে ট্রফি গ্রহণ

আপডেটঃ ৫:৪৯ অপরাহ্ণ | আগস্ট ৩১, ২০১৬

মোবারক হোসেন,নরসিংদীঃ পলাশ থেকে মোবারক হোসেনঃ নরসিংদী তথা সারা বাংলাদেশের গর্ব ঐতিহাসিক জনতা জুট মিলস্ পলাশের শীতলক্ষা নদীর তীরে ১৯৬৮ইং সালে প্রতিষ্ঠা করে গেছেন আলহাজ¦ মরহুম মোজাম্মেল হক সাহেব।

কিন্তু দুঃখের বিষয় তিনি আজ আমাদের মাঝে নেই, চলে গেছেন পরপারে। তার সুযোগ্য দুই সন্তান পিতার প্রতিষ্ঠা করা দুটি প্রতিষ্ঠানই জনতা ও সাদাত জুট মিলস্ সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা করার ফলে প্রতি বছরই জাতীয় রপ্তানিতে প্রথম স্থান অর্জন করে এবং স্বর্ণ পদক রপ্তানি ট্রফি পায়। কিন্তু প্রতিযোগীতাপূর্ণ পন্য বহুমুখী বাজারে এবার ২০১১-১২ ও ২০১২-১৩ অর্থ বছরে রৌপ্য পদক পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে এবং জাতীয় রপ্তানি ট্রফি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে অত্র প্রতিষ্ঠানের মালিক ট্রপি গ্রহণ করেন।

এটা আমাদের নরসিংদীর পলাশ নয় সারা বাংলাদেশের গর্ব। গত ২৮ আগষ্ট রবিবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো বানিজ্য মন্ত্রনালয় আয়োজিত জাতীয় রপ্তানি ট্রফি বিতরন অনুষ্ঠানে বানিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, “ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করবেন, আমরা সব ধরনের সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়ে সার্বিক অগ্রগতির মাধ্যমে দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থার যেন দ্রুত উন্নতি হয় সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি”। এসময় বিগত ০৭ (সাত) বছরে প্রায় একুশ হাজার কোটি টাকা ব্যবসার ক্ষেত্রে তার সরকার নগদ সহায়তা প্রদান করেছে বলে প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন। সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় পন্য বাজার বহুমুখী করার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন অধিক মূল্য সংযোজিত পন্য উৎপাদনে ও দেশজ কাচাঁমাল নির্ভর রপ্তানি পন্য উৎপাদনে আপনাদের মনোনিবেশ করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের জনশক্তি অর্থনৈতিক সম্পদ। এই সম্পদ সঠিকভাবে কাজে লাগানোর জন্য আমি অনুরোধ করছি।

আমাদের রপ্তানি খাতের শ্লোগান হচ্ছে “ফ্রম শার্ট টু শিপ” বলেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে ২০১১-১২ ও ২০১২-১৩ অর্থ বছরের রপ্তানি বানিজ্য বিকাশে উল্লেখ্যযোগ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ নরসিংদী জেলার পলাশ উপজেলা স্বনাম ধন্য জনতা জুট মিলস্ এর প্রতিষ্ঠাতা মরহুম মোজাম্মেল হক এর বড় ছেলে বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হক এর হাতে জাতীয় রপ্তানিতে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ট্রফি ও সনদ তুলে দেন।

পাশাপাশি একই মালিকের আরও একটি প্রতিষ্ঠান কুমিল্লার চান্দিনায় সাদাত জুট মিলস্ জাতীয় রপ্তানিতে ৩য় স্থান অর্জন করায় অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম মোজাম্মেল হক এর সুযোগ্য ছোট বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহমুদুল হক এর হাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্রোঞ্জ ট্রফি ও সনদ তুলে দেন। উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য অত্র প্রতিষ্ঠানের মালিক মহোদয় জনতা ও সাদাত জুট মিলের সকল শ্রমিক কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ওয়াকার্স ইউনিয়নের নেত্রীবৃন্দসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি এও বলেছেন আমরা সকলের সহযোগিতায় উৎপাদন ও রপ্তানি বাড়িয়ে পূর্বের অবস্থানে অথাৎ জাতীয় রপ্তানিতে প্রথম স্থানে যাতে আবার যেতে পারি সেজন্য সকলের সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করেছেন।